পিতা-মাতার প্রতি মিজানুর রহমান আজহারীর আহ্বান

প্রকাশিত: ১২:২২ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১০, ২০২১

পিতা-মাতার প্রতি মিজানুর রহমান আজহারীর আহ্বান

বখে যাচ্ছে কিশোর কিশোরী, তাদের নেই নৈতিক শিক্ষা। পরিবার থেকেও খোঁজ রাখা হয় না, তাদের সন্তান কোথায় যাচ্ছে, কার সাথে মিশছে। সেই সাথে পারস্পরিক সম্মতিতে শারীরিক সম্পর্ক দোষের না হওয়ায় বেপরোয়া হয়ে যাচ্ছে অনেকে। সম্প্রতি ঢাকায় গ্রুপ স্টাডির নামে একত্রে হয়ে এক কিশোরের সাথে শারীরিক সম্পর্কে মিলিত হয়ে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে মৃত্যু হয় এক কিশোরীর। এ নিয়ে পক্ষ বিপক্ষে তোলপাড় চলছে দেশে।

 

 

 

নৈতিক শিক্ষায় সন্তানদের শিক্ষিত করা এবং প্রাসঙ্গিক বিষয়ে আজ নিজেদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের ভেরিফাইড পেজে পোষ্ট দিয়েছেন মিজানুর রহমান আজহারী। তিনি লেখেন-

 

 

আপনার আদরের সন্তান প্রতিদিন কোথায় যায়? কার সাথে মিশে? বাইরে কিভাবে সময় কাটায়? এসব ব্যাপারে নিয়মিত খোঁজ নিন এবং মনিটরিং করুন। বিশেষ করে, আপনার কন্যা সন্তানের নিরাপত্তার স্বার্থে প্রয়োজনে কিছুটা স্ট্রিক্ট হোন। সন্তানের প্রতি বাবা-মায়ের উদাসীনতা, নৈতিক মূল্যবোধের চর্চার অভাব এবং সন্তানকে অতিরিক্ত প্রশ্রয়—অধিকাংশে তাদের উচ্ছৃঙ্খল ও অবাধ্য করে তোলে।

 

 

 

আপনার সামান্য অবহেলায় নষ্ট হয়ে যেতে পারে তাদের উজ্জ্বল ভবিষ্যত, এমনকি বিপন্ন হতে পারে তাদের সুন্দর জীবন। উঠতি বয়সের তরুণ তরুণীদের ক্ষেত্রে— সঙ্গদোষ একটি বড় সমস্যা। কু-সঙ্গে বিপথগামীদের সাথে মিশে, আপনার প্রিয় সন্তানটিও হয়ে যেতে পারে মাদকাসক্ত কিংবা জড়িয়ে পড়তে পারে কোন কিশোর গ্যাং এর সাথে অথবা সেক্সুয়ালি এবিউজ্ড হতে পারে আপনার আদরের মেয়েটিও। তাই আদর, সোহাগ আর আহ্লাদের পাশাপাশি সন্তানকে যথাযথ শাসন করুন এবং নৈতিকতার শিক্ষা দিন। আর তা না হলে, পরম মমতায় আগলে রাখা আপনার আদরের সন্তানটিও, সঙ্গদোষে হয়ে উঠতে পারে অন্ধকার পথের যাত্রী।

 

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

Like Us On Facebook

Facebook Pagelike Widget
error: Content is protected !!