২০০ কেজি ওজনের মাছের গুজব, পাড়ে তোলার পর হলো ৬০০ গ্রাম

প্রকাশিত: ৩:৩০ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২১, ২০২০

২০০ কেজি ওজনের মাছের গুজব, পাড়ে তোলার পর হলো ৬০০ গ্রাম

স্বপ্ন ঘুড়ি ডেস্ক:বাংলাদেশে গুজব ছড়াতে সময় লাগে না, যেকোন বিষয়েই গুজব প্রকাশ করলেই তা মুহুর্তের মধ্যে ছড়িয়ে যায় এলাকাব্যাপী এবং ফেসবুকের জনপ্রিয়তায় দেশব্যাপী ছড়িয়ে যায় মুহুর্তেই। সম্প্রতি বরশিতে আটক হওয়া মাছ নিয়েও হয়েছে লংকাকান্ড।

 

সিলেটের গোলাপগঞ্জের কুড়া নদীতে এক শৌখিন শিকারির বড়শিতে ধরা পড়া পাগলা মাছ নিয়ে সৃষ্টি হয়েছে কৌতূহল। শুক্রবার রাতে মাছটি বড়শিতে ধরা পড়লেও পাড়ে তুলতে অনেক বেগ পেতে হয়েছে।

 

উপজেলার ঢাকা দক্ষিণের নগর এলাকায় কুড়া নদীতে শুক্রবার রাতে মাছ শিকারে যান সুরুজ আলী নামে এক ব্যক্তি। এ সময় তার বড়শিতে ধরা পড়ে ৬০০ গ্রাম ওজনের একটি পাগলা মাছ। ধরা পড়ার পর মাছটি নদীপাড়ে তুলতে তিনি অনেক চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছেন। এরই মধ্যে এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে বড়শিতে ধরা পড়েছে ২০০ কেজি ওজনের পাগলা মাছ। বিষয়টি সঙ্গে সঙ্গে চাউর হয়ে যায় গোটা এলাকায়। শুরু হয় তোলপাড়। এরপর বিভিন্ন এলাকা থেকে শত শত লোকজন মাছটি দেখতে ছুটে আসেন নদীপাড়ে। ফলে লোকে-লোকারণ্য হয়ে যায় গোটা নদীর পাড়।

 

এদিকে শুক্রবার রাতভর চেষ্টা করেও মাছটি নদীপাড়ে তুলতে না পারার ফলে ছুটে আসে ডুবুরি দল। শনিবার সকালে ডুবুরি দল মাছটি নদী থেকে তুলে পাড়ে আনার পর দেখেন মাছটির ওজন ৬০০ গ্রাম।

 

সুরুজ আলী বলেন, কে বা কারা ২০০ কেজি ওজনের মাছ আমার বড়শিতে ধরা পড়েছে বলে পুরো উপজেলায় ছড়িয়ে দেয়। ফলে শত শত লোক ছুটে আসেন নদীপাড়ে। শুক্রবার রাতে মাছটি আমার বড়শিতে ধরা পড়ার পর থেকে আমি মাছটি পাড়ে তুলতে না পারায় অনেকেই ধারণা করেছিল মাছটি হয়তো অনেক বড় হবে। সূত্র-দৈনিক যুগান্তর