অথচ ম্যাচের ৩৯ ওভার পর্যন্ত হিরো ছিলেন মুক্তার আলী

প্রকাশিত: ৬:৫৫ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৪, ২০২০

অথচ ম্যাচের ৩৯ ওভার পর্যন্ত হিরো ছিলেন মুক্তার আলী

জুবায়ের আহমেদ:বঙ্গবন্ধু টি২০ কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে বেক্সিমকো ঢাকাকে ২ রানে হারিয়ে টুর্নামেন্টে শুভ সূচনা করেছে মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহী। ব্যাট হাতে ৩২ বলে ৫০ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলার পর বল হাতে ৪ ওভারে ২২ রান দিয়ে ১ উইকেট শিকার করে ম্যাচসেরা হয়েছেন স্পিন অলরাউন্ডার শেখ মেহেদী হাসান। ১৬ বলে ৩ ছয়ে অপরাজিত ২৭ রানের পূর্বে বল হাতে ৩ উইকেট শিকার করে সেরা পারফর্ম করলেও শেষ ওভারের ব্যর্থতায় হিরো থেকে ভিলেনে পরিণত হন জাতীয় দলের হয়ে ২০১৬ সালে এক টি২০ ম্যাচ খেলা মুক্তার আলী।

 

মিরপুরে শুরুতেই ব্যাট হাতে তোলেন যুবা আনিসুল ইসলাম ইমন। শান্ত ১৬ বলে ১৭ রান করে ফিরলেও ইমন ২৩ বলে ১ ছয় ও ৫ চারে ৩৫ রানের ইনিংস খেলেন। উদ্বোধনী জুটিতে ৩১ রান করার পর ৪৮ রানে ২ উইকেট পতনের মাধ্যমে ধস নামে রাজশাহীর ইনিংসে। রনি তালুকদার ৮ বলে ৬, আশরাফুল ৯ বলে ৫, ফজলে রাব্বি শুণ্যে ফিরেন। মাত্র ৬৫ রানে ৫ উইকেট পতনের পর ৬ষ্ঠ উইকেটে সোহান ও শেখ মেহেদী ব্যাট হাতে তান্ডব চালান। দুজনে ঝড়ো ব্যাট করে ৮৯ রানের জুটি গড়েন। সোহান ২০ বলে ৩ ছয় ও ২চারে ৩৯ রান করে ফিরলেও ৩২ বলে ৪টি ছয় ও ৩ চারে ৫০ রান করেন মেহেদী।

 

আরাফাত সানি শুণ্য, মুকিদুল শুণ্যে ফিরলেও ফরহাদ রেজা ইনিংসের শেষ বলে ছয় হাঁকালে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৬৯ রানের বড় সংগ্রহ পায় রাজশাহী। রেজা ৬ বলে ১১ রানে অপরাজিত থাকেন। ঢাকার হয়ে অসাধারণ বোলিং করেন পেস অলরাউন্ডার মুক্তার আলী। ৪ ওভারে মাত্র ২২ রান দিয়ে ৩ উইকেট শিকার করেন মুক্তার। মেহেদী হাসান রানা, নাসুম আহমেদ ও নাইম হাসান ১টি করে উইকেট শিকার করেন।

 

ইনিংস বিরতি শেষে ১৭০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নামা ঢাকার হয়ে ঝড় তোলেন তানজীদ হাসান তামিম। ১১ বলে ১৮ রান করে তামিম রান আউট ও ৯ রান করে ফেরেন ইয়াসির আলী। মোহাম্মদ নাইম ১৭ বলে ২৬ রান করে ফিরলে ৫৫ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পরা ঢাকার হাল ধরেন অভিজ্ঞ মুশফিক ও বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক আকবর আলী। দুজনে ঝড়ো ব্যাট করে দলকে জয়ের পথেই রাখেন। মুশফিক ৩৪ বলে ৪১ ও আকবর আলী ২৯ বলে ৩৪ রান করে ফেরার পর আস্কিং রেটে বেড়ে গেলেও সাব্বিরের সাথে জুটি বেধে মুক্তার আলী দলকে জয়ের কাছাকাছি নিয়েও ২ রানে পরাজয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে।

 

জয়ের জন্য শেষ ২ ওভারে ৩০ রানের প্রয়োজনে ফরহাদ রেজার করা ১৯তম ওভারে ৩ ছয়ে ২১ রান সংগ্রহ করেন মুক্তার আলী। জয়ের জন্য ২০তম ওভারে মাত্র ৯ রানের প্রয়োজনে শেখ মেহেদী হাসানের ওভারে চরম ব্যর্থ হন মুক্তার, মেহেদীর স্পিন ভেল্কিতে দিশেহারা হয়ে এক নো বল সহ ওভারে মাত্র ৬ রান সংগ্রহ করেন মুক্তার আলী। ৫ উইকেট হারিয়ে ১৬৭ রানে থামে ঢাকার ইনিংস। ২ রানের অবিশ্বাস্য জয় তুলে নেয় রাজশাহী।

 

 

আজ দিনের ২য় ম্যাচে রাত ৬.৩০ মিনিটে জেমকন খুলনা বনাম ফরচুন বরিশাল একে অপেরের মুখোমুখি হবে। এ ম্যাচে খুলনার হয়ে খেলছেন সাকিব এবং দীর্ঘ ১ বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আবারো মাঠে নামছেন তিনি।

Like Us On Facebook

Facebook Pagelike Widget
error: Content is protected !!