উগ্র সমর্থকদের নোংরামী বন্ধ হোক

প্রকাশিত: ১০:৩২ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২০

উগ্র সমর্থকদের নোংরামী বন্ধ হোক

জুবায়ের আহমেদ:

খেলাধূলায় এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ, বিশেষ করে ক্রিকেটে বাংলাদেশের সফলতা এবং বর্তমান অবস্থান আশাবাদী করে তোলে ক্রীড়াপ্রেমী প্রজন্মকে। বাংলাদেশ দলের সফলতার গ্রাফ উর্ধ্বমুখী বলেই তরুণরা স্বপ্ন দেখে ক্রিকেটার হওয়ার। স্বপ্নটা এখন শুধু তরুণদেরই নয়, মা-বাবাও স্বপ্ন দেখেন তাদের সন্তান ক্রিকেটার হবে। এক সময়ে বাংলাদেশে তুমুল জনপ্রিয় খেলা ফুটবলের বর্তমান অবস্থান আশানুরূপ না হলেও আন্তর্জাতিক ফুটবলে বাংলাদেশের অংশগ্রহণ চলমান আছে। প্রায়শ ভালোও খেলছেন বাংলাদেশ ফুটবল দল। ফুটবলার হওয়ার জন্যও দেশব্যাপী বহু তরুণ স্বপ্ন নিয়ে শুরু করছে। এছাড়াও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রতিনিধিত্ব করে, এমন সকল খেলাতেই কমবেশ ঝুকছে তরুণ তরুণীরা।

 

সমর্থকরা একটি খেলার প্রাণ। গ্রাম পর্যায়েও দর্শকবিহীন খেলা ততটা জমজমাট হয় না। এটি খেলা তখনই আকষর্ণীয় ও জমজমাট হয়, যখন মাঠের চারদিকে দর্শকে পরিপূর্ণ হয়, খেলাটি নিয়ে আলোচনা, সমালোচনা হয়। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ের খেলাধূলায় ক্রীড়াবিদ ও আয়োজক সংস্থা মিলিয়ে অর্থের ব্যাপার জড়িত থাকায় টিভির দর্শক কিংবা মাঠে দর্শক, সবমিলিয়ে দর্শকদের অংশগ্রহণ আবশ্যক। বহু দেশে ক্রিকেট কিংবা অন্যান্য খেলাধূলা হারিয়ে যাচ্ছে শুধুমাত্র সমর্থকদের অনাগ্রহ এবং সেই সূত্রে স্পন্সর না পাওয়ার কারনে অর্থাৎ ক্রীড়া অর্থনীতিতে সমর্থকদের বিশাল ভ‚মিকা থাকেই। প্রিয় দলের সফলতা ব্যর্থতায় সমর্থকরা আনন্দ-বেদনা প্রকাশ করেন, আলোচনায় মেতে থাকেন। বাংলাদেশে ক্রিকেট নিয়ে উম্মদনা অন্যান্য অনেক দেশের চেয়েও বেশি। সমর্থকরা দিন-রাত মেতে থাকেন খেলাধূলা নিয়ে। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে যখনই যে খেলায় ভালো করে বাংলাদেশ, সমর্থকরা তাদের বাহবা দিতে কার্পণ্য করেন না। আবার ব্যর্থ হলে সমালোচনা করতেও পিছপা হন না সমর্থকরা।

 

বাংলাদেশে এখন সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় ও আলোচিত খেলা ক্রিকেট। বাংলাদেশ দল ক্রিকেটে ধারাবাহিক উন্নতি করছে। যেসকল ক্রিকেটারদের হাত ধরে আসছে সফলতা, সেসকল ক্রিকেটারদের বিশাল ফ্যানবেজ তৈরী হয়েছে দেশে, যারা প্রিয় ক্রিকেটারের সফলতায় আনন্দিত হন, উল্লাসে মেতে উঠেন। প্রিয় ক্রিকেটারের ব্যর্থতায়, মর্মাহত হন, পরবর্তীতে ভালো করার আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তবে বহু সমর্থকদের কর্মকান্ড স্বাভাবিক অবস্থা ছাপিয়ে এতোটাই ভয়াবহ হয়েছে যে, নিজ দেশের ক্রিকেটারদেরও তারা বিভক্ত করে রাখেন শুধুমাত্র সমর্থনের জায়গা থেকে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রিয় ক্রিকেটারের কেউ সমালোচনা করলে সমালোচনাকারীকে আক্রমণ করেন ব্যক্তিগত ভাবে।

 

যাদের প্রিয় ক্রিকেটার ভালো খেলেন, তাদের অনেকেই হয়ে উঠেন অহংকারী, অন্যদের ব্যর্থতা নিয়ে কটুক্তিতে মেতে উঠেন এবং ক্রিকেটারদের যেসকল ভালো-মন্দ বিষয় প্রকাশ হয় মিডিয়ায়, সেসব নিয়ে নোংমারিতে লিপ্ত হন। এছাড়াও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্রিকেটার এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের যেকোন এক্টিটিভিজকে কেন্দ্র করে কাঁদা ছুড়াছুড়িতে লিপ্ত হন সমর্থকরা। প্রিয় ক্রিকেটার কিংবা তার পরিবারের সদস্যদের ছবি কিংবা কোন মন্তব্যকে ইতিবাচক ভাবে প্রকাশ করার বিপরীতে অপছন্দের কোন ক্রিকেটার কিংবা তার পরিবারের কোন ছবি কিংবা মন্তব্যকে নেতিবাচক হিসেবে প্রকাশ করেন। গালাগালি থেকে শুরু করে এমন কোন নোংরা কাজ নেই যা তারা করেন না। নিজেদের মধ্যে সমস্যাকে কেন্দ্র করে ক্রিকেটার ও তাদের পরিবার নিয়ে নোংরামিতে লিপ্ত হন। এই সকল সমর্থকদের কাছে প্রিয় ক্রিকেটারই শেষ কথা, দেশ কিংবা দেশের অন্য ক্রিকেটার বড় বিষয় নয়। নোংরামী এতোই নিচু পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, এই সকল সমর্থকরা তাদের অপ্রিয় ও ক্রিকেটারের নামে নোংরা ভাষায় গ্রæপ খোলে নিজেদের হীনমানসিকতার কার্যক্রম চালান, যা কাম্য নয়।

 

বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গনে বাংলাদেশী সমর্থকদের বেশ সুনাম আছে। কিন্তু এই সমর্থকরা নিজেদের দেশের ক্রিকেটারদের নিয়ে যে নোংরামীতে লিপ্ত হন, তা বর্ণনাতীত। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই ধরনের সমর্থকদের কর্মকান্ডে বিরক্তির শেষ নেই। তাদের প্রতিবাদ করলেই গালাগালি থেকে শুরু করে আইডি ডিজেবল, হ্যাক করে ফেলার হুমকি সহ পেতে হয়। উগ্র সমর্থকদের শুধুমাত্র আইনগত ভাবেই প্রতিহত করা সম্ভব নয়, সমর্থকদের নিজেদেরও শুধরাতে হবে। কাঁদাছুড়াছুড়ি বন্ধ করতে হবে। কেউ কুকুর হয়ে পায়ে কামড় দিলেও, নিজেকে কুকুর হওয়া থেকে বিরত রাখতে হবে। যারা নিজেদের নোংরামী হতে বিরত রাখতে পারবে না, তাদেরকে আইনের আওতায় এনে শাস্তি প্রদানের মাধ্যমে হলেও দমন করতে হবে। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সমর্থকগোষ্ঠীর স্বচ্ছতার জন্য সমর্থকদের নোংরামী বন্ধ ও প্রতিহত করা খুব জরুরী।

 

শিক্ষার্থী
ডিপ্লোমা ইন জার্নালিজম
বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব জার্নালিজম অ্যান্ড ইলেকট্রনিক মিডিয়া (বিজেম)
কাটাবন, ঢাকা।
এবং
প্রচার সম্পাদক
বাংলাদেশ তরুণ কলাম লেখক ফোরাম

Like Us On Facebook

Facebook Pagelike Widget
error: Content is protected !!